Homeইসলামিক গল্পকোন দোয়া পড়লে কি হয় দেখে নিন আপনারো কাজে আসতে পারে।।।।

কোন দোয়া পড়লে কি হয় দেখে নিন আপনারো কাজে আসতে পারে।।।।

بسم الله الرحمن الرحيم
আল্লাহর তাআলারমহান সন্তুষ্টি পাওয়ার দোয়া : হজরত নবী করিম (সা.) ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তি সকালে তিনবার এবং বিকালে তিনবার এ দোয়াটি পাঠ করবে আল্লাহতায়ালা অবশ্যই কিয়ামতের দিন তাকে সন্তুষ্ট করবেন। -মুসনাদে আহমাদ ‍ ﺭَﺿِﻴﺖُﺑِﺎﻟﻠَّﻪِﺭَﺑًّﺎﻭَﺑِﺎﻟْﺈِﺳْﻠَﺎﻡِﺩِﻳﻨًﺎ ﻭَﺑِﻤُﺤَﻤَّﺪٍ ﻧَﺒِﻴًّﺎ উচ্চারণ : রাজিতু বিল্লাহি রাব্বান, ওয়াবিল ইসলামি দীনান, ওয়া বিমুহাম্মাদিন নাবিয়্যান। অর্থ : আমি আল্লাহ তায়ালাকে প্রভু পেয়ে সন্তুষ্ট, ইসলামকে জীবনাদর্শ পেয়ে সন্তুষ্ট ও হজরত মোহাম্মদ (সা.) কে নবী হিসেবে পেয়ে সন্তুষ্ট আছি। বিপদে পাঠ করার দোয়া: হজরত ইবনে আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) বিপদের সময় এই দোয়াটি পাঠ করতেন — লা ইলাহা ইল্লাল্লাহুল হালীমুল হাকীম, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু রাব্বুল আরশিল আজীম, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু রাব্বুস সামাওয়াতি ওয়াল আরদি- ওয়া রাব্বুল আরশিল কারীম। অর্থ : আল্লাহ ব্যতীত কোনো উপাস্য নেই, তিনি পরম সহিষ্ণু ও মহাজ্ঞানী। আল্লাহ ব্যতীত কোনো উপাস্য নেই, তিনি মহান আরশের প্রভু। আল্লাহ ব্যতীত কোনো উপাস্য নেই, তিনি আকাশমন্ডলী, জমিন ও মহা সম্মানিত আরশের প্রভু। -সহিহ বোখারি ও মুসলিম বিশেষ প্রয়োজনীয় কিছু দোয়া: কোনো গুনাহের কাজ অথবা আত্মীয়তার সম্পর্ক ছিন্ন করার দোয়া ছাড়া কোনো মুসলমান আল্লাহর কাছে যে কোনো দোয়া করুক না কেন, আল্লাহ পাক তাকে ৩ টি জিনিসের যেকোনো একটি অবশ্যই দান করবেন। মানে দোয়ার জবাবে আল্লাহ ৩ টি উত্তর দেন- ১) হয় যেটা চেয়েছে সেটাই দান করবেন। ২) অথবা উহা তার পরকালের জন্য জমা রাখবেন । ৩) অথবা উহার অনুরূপ কোনো অমঙ্গলকে তার থেকে দূরে রাখবেন। খেয়াল করবেন আল্লাহ কিন্তু না বলেন না। মানব কল্যাণের জন্য জন্য আল্লাহ যুগে যুগে বহু নবী রাসূল প্রেরণ করেছেন। সর্বশেষ নবী মোহাম্মদ (সা.) এর জীবন আদর্শ মেনে চললে ও তার উপর নাজিলকৃত মহান আল কোরআনে দেয়া দিক নির্দেশনা গুলো মেনে চললে আখিরাত তো অবশ্যই দুনিয়াতেও নিশ্চিত ভাবে সফল হওয়া যায়। তবে ক্ষণস্থায়ী দুনিয়ার জীবনের চেয়ে পরকালকে বেশি গুরুত্ব দেয়া উচিত। দুনিয়ার সমস্যা গুলোর সমাধান, দোয়া কবুল হওয়ার জন্য ও আখিরাতে উত্তম ফল লাভের জন্য আল্লাহর জিকির ও তার রসূল (সা.) এর উপর দরুদ ও সালাম জানানো খুব ফলপ্রসূ। নিচের আমলটি দোয়া কবুলের জন্য করতে পারেন। আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস রেখে তার শক্তি সামর্থ্য সম্পর্কে পরিপূর্ণ বিশ্বাস স্থাপন করে নিচের আমলটি করলে দোয়া কবুল হবে ইনশাআল্লাহ। রাতের শেষ তৃতীয়াংশে ওযু করে পবিত্র হয়ে দুই রাকাত সালাতুত তওবার নামাজ পড়ে ও তাহাজ্জুদের নামাজ পড়ে- ১০০ বার সুবাহানাল্লা ১০০ বার, আলহামদুলিল্লাহ ১০০ বার, আল্লাহু আকবার ১০০ বার, ইয়া ওয়াহহাব ১০০ বার, আসতাগফিরুল্লাহ ১০০ বার, দোয়া ইউনুছ তথা লা ইলাহা ইল্লা আনতা সুবহানাকা ইন্নি কুন-তু মিনাজ জোয়ালেমিন ১০০ বার, আল্লাহর মহান রসূল (সা.) এর উপর ১০০ বার দরুদ পড়ে দোয়া করলে ইনশাআল্লাহ দোয়া কবুল হবে। এই আমল গুলো নিয়মিত করলে, নিয়মিত নামাজ পড়লে ও প্রতিদিন অন্তত কোরআন থেকে ৫ টি আয়াত অর্থ সহ তেলাওয়াত করলে আল্লাহ বান্দার ঈমান বাড়িয়ে দিবেন। ঈমানকে বাড়াতে বাড়াতে আল্লাহ এমন পর্যায়ে নিয়ে যাবেন যে, দুনিয়ার কাউকে পরওয়া করবেন না সবকিছুতেই একমাত্র আল্লাহর উপরেই ভরসা করবেন।রাতের ইবাদত ও দোয়া আল্লাহর কাছে অনেক মর্যাদা ও সম্মানের। রাতের দোয়া ও ইবাদতে তাওহিদের সাক্ষ্য দিয়ে মহান আল্লাহর কাছে দোয়া করলে সে দোয়া আল্লাহ তাআলা ফেরত দেন না। বান্দার সব দোয়া আল্লাহ তাআলা কবুল করে নেন। হাদিসে এসেছে- রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যখন তোমাদের কেউ রাতে জেগে আল্লাহরকাছে দোয়া করে, আল্লাহ তাআলা তার দোয়া কবুল করেন। আর যদি ওই ব্যক্তি ওজু করে এবং নামাজ আদায় করে তবে সে নামাজও কবুল করা হয়।’ (বুখারি, মিশকাত) দোয়াটি হলো- ﻻ ﺇﻟﻪَ ﺇﻻَّ ﺍﻟﻠَّﻪ ﻭﺣْﺪﻩُ ﻻَ ﺷَﺮِﻳﻚَ ﻟﻪُ، ﻟَﻪُ ﺍﻟﻤُﻠْﻚُ، ﻭﻟَﻪُ ﺍﻟﺤﻤْﺪُ، ﻭَﻫُﻮ ﻋَﻠَﻰ ﻛُﻞِّ ﺷَﻲﺀٍ ﻗَﺪِﻳﺮٌ-ﺳُﺒْﺤَﺎﻥَ ﺍﻟﻠﻪِ، ﻭَﺍﻟْﺤَﻤْﺪُ ﻟﻠﻪِ، ﻭَﻟَﺎ ﺇﻟَﻪَ ﺇﻟّﺎ ﺍﻟﻠﻪُ، ﻭَﺍﻟﻠﻪُ ﺃﻛْﺒَﺮ-ﻭَﻟَﺎ ﺣَﻮْﻝَ ﻭَﻟَﺎ ﻗُﻮَّﺓَ ﺇﻟَّﺎ ﺑِﺎﻟﻠﻪ উচ্চারণ : লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহ্দাহু লা শারিকা লাহু, লাহুল মুলকু ওয়া লাহুল হামদু ওয়া হুয়া আলা কুল্লি শাইয়িন কাদির। সুবহানাল্লাহি ওয়াল হামদু লিল্লাহি ওয়া লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার; ওয়া লা হাওলা ওয়া লা কুয়্যাতা ইল্লা বিল্লাহ। অনুবাদ : আল্লাহ ব্যতীত কোন উপাস্য নেই। তিনি একক, তাঁর কোন শরীক নেই। তাঁর জন্যই সকল রাজত্ব ও তাঁর জন্যই সকল প্রশংসা এবং তিনিই সকল কিছুর উপরে ক্ষমতাশালী। মহা পবিত্র আল্লাহ। সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্য। আল্লাহ ব্যতীত কোন উপাস্য নেই। আল্লাহ সবার চেয়ে বড়। নেই কোন ক্ষমতা নেই কোন শক্তি আল্লাহ ব্যতীত’। অতপর বলবে- ‘রাব্বিগফিরলি’ অর্থাৎ হে আমার রব! আমাকে ক্ষমা করুন। আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে রাতে জেগে ওঠে এ দোয়ার মাধ্যমে প্রার্থনা করার তাওফিক দান করুন। আমিন।
10 months ago (February 1, 2021) 137 Views
Tags
Direct Link:
Share Tweet Plus Pin Send SMS Send Email

About Author (92)

Author

Nothing To Say....

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts



© 2021 All Right Received