Homeইসলামিক গল্পরাসুল (সাঃ) এর একটি শিক্ষনীয় গল্প…..

রাসুল (সাঃ) এর একটি শিক্ষনীয় গল্প…..

بسم الله الرحمن الرحيم

প্রিয় ভাই প্রথমে আমার সালাম নেবেন । আশা করি ভালো আছেন । কারণ TipsTrickBD এর সাথে থাকলে সবাই ভালো থাকে । আর আপনাদের দোয়ায় আমি ও ভালো আছি । তাই আজ নিয়ে এলাম আপনাদের জন্য একদম নতুন একটা টপিক। আর কথা বাড়াবো না কাজের কথায় আসি ।


হযরত আবু বকর (রাঃ) বলেন, আমি রাসূল (সাঃ) এর সহিত মক্কা হইতে রওয়ানা হইলাম। আমরা চলিতে চলিতে আরবের এক গোত্রের নিকট পৌঁছিলাম। গোত্রের এক কিনারায় অবস্থিত এক ঘরের প্রতি রাসূল (সাঃ) এর দৃষ্টি পড়িল। তিনি সেখানে গেলেন। আমরা সেখানে পৌঁছিয়া যখন সওয়ারী হইতে নীচে নামিলাম তখন দেখিলাম, সেখানে শুধু একজন মহিলা রহিয়াছে। মহিলা বলিল, হে আল্লাহর বান্দা, আমি শুধু একজন মহিলা মানুষ। আমি একা, আমার সহিত কেহ নাই। তোমরা যদি মেহমান হইতে চাও তবে গোত্রের সর্দারের নিকট চলিয়া যাও। রাসূল (সাঃ) তাহার কথার কোন উত্তর দিলেন না। বরং সেখানেই অবস্থান করিলেন। আর তখন সন্ধ্যার সময় ছিল। কিছুক্ষণের মধ্যে মহিলার ছেলে বকরীর পাল হাঁকাইয়া লইয়া আসিল। মহিলা ছেলেকে বলিল, বেটা, এই বকরী আর ছুরি এই দুই ব্যক্তির নিকট লইয়া যাও এবং তাহাদেরকে বল, আমার মা বলিতেছেন, এই বকরী জবাই করিয়া আপনারাও খান এবং আমাদেরকেও খাওয়ান। ছেলে আসিলে রাসূল (সাঃ) বলিলেন, ছুরি লইয়া যাও এবং (দুধ লইবার জন্য) পেয়ালা লইয়া আস। ছেলে বলিল, এই বকরী তো চারণভূমি হইতে দূরে ছিল, ইহার তো দুধ নাই। সে যাইয়া একটি পেয়ালা লইয়া আসিল। রাসূল (সাঃ) বকরীর স্তনে হাত বুলাইয়া দুধ দুহিতে আরম্ভ করিলেন। এত দুধ বাহির হইল যে, পেয়ালা ভরিয়া গেল। রাসূল (সাঃ) বলিলেন, এই পেয়ালা তোমার মাকে দিয়া আস। তাহার মা খুব পরিতৃপ্ত হইয়া উহা পান করিল। তারপর সে পেয়ালা লইয়া আসিল। রাসূল (সাঃ) বলিলেন, এই বকরী লইয়া যাও এবং অন্য আরেকটি বকরী লইয়া আস। সে অপর বকরী লইয়া আসিল। তিনি উহার দুধ দুহিয়া আমাকে পান করাইলেন। অতঃপর ছেলে তৃতীয় একটি বকরী আনিল। উহার দুধ দুহিয়া রাসূল (সাঃ) নিজে পান করিলেন। আমরা সেই রাত্র সেখানে কাটাইলাম এবং পরদিন সকালবেলা সামনে রওয়ানা হইলাম। উক্ত মহিলা রাসূল (সাঃ) নাম মোবারক (অর্থাৎ বরকতময়) রাখিল। পরবর্তীতে আল্লাহ তায়ালা উক্ত মহিলার বকরীর পালে খুব বরকত দান করিলেন এবং সে বিক্রয় করার উদ্দেশ্যে উহা লইয়া মদিনায় আসিল। আমি সেখান দিয়া যাওয়ার সময় মাহিলার ছেলে আমাকে দেখিয়া চিনিয়া ফেলিল এবং বলিতে লাগিল, আম্মাজান, এই ব্যক্তি সেই মোবারক ব্যক্তির সহিত ছিল। মহিলা উঠিয়া আমার নিকট আসিল এবং বলিল, হে আল্লাহর বান্দা, সেই মোবারক ব্যক্তি যিনি তোমার সহিত ছিলেন, তিনি কে ছিলেন? আমি বলিলাম, তোমার কি জানা নাই, তিনি কে? মহিলা বলিল, না। সে বলিল, আমাকে তাহার নিকট লইয়া চল। আমি তাহাকে নবী কারীম (সাঃ) এর নিকট লইয়া গেলাম। তিনি তাহাকে খানা খাওয়াইলেন। দেরহাম ও দীনার দিলেন এবং হাদিয়া স্বরূপ তাহাকে পনীর ও গ্রাম্য জিনিসপত্র ছিলেন। পরিধানের কাপড়ও দান করিলেন। উক্ত মহিলা মুসলমানও হইয়া গেল। হযরত ইবনে মাসউদ (রাঃ) বলেন, আমি উকবা ইবনে আবি মুআইতের বকরী চরাইতেছিলাম। রাসূল (সাঃ) ও হযরত আবু বকর (রাঃ) আমার নিকট দিয়া গেলেন। রাসূল (সাঃ) বলিলেন, এই ছেলে, দুধ আমার নিকট আমানত স্বরূপ আছে। আর আমি হইলাম উহার আমানতদার। (অর্থাৎ মালিকের অনুমতি ব্যতীত দিতে পারি না) রাসূল (সাঃ) বলিলেন, এমন কোন বকরী আছে কি, যাহাকে এখনো পাল দেওয়া হয় নাই? হযরত ইবনে মাসউদ (রাঃ) বলেন, আমি এরূপ একটি বকরী তাহার নিকট লইয়া আসিলাম। রাসূল (সাঃ) উহার স্তনের উপর হাত বুঝাইলে স্তনে দুধ নামিয়া আসিল। তিনি একটি পাত্রে দুধ দুহিলেন এবং নিজেও পান করিলেন, আর হযরত আবু বকর (রাঃ) কেও পান করাইলেন। অতঃপর তিনি স্তনকে বলিলেন, গুটাইয়া যাও। সুতরাং উহা গুটাইয়া ছোট হইয়া গেল। হযরত ইবনে মাসউদ (রাঃ) বলেন, এই ঘটনার পর আমি রাসূল (সাঃ) এর খেদমতে হাজির হইয়া আরজ করিলাম, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমাকেও এই কালাম শিখাইয়া দিন। তিনি আমার মাথায় হাত বুলাইয়া বলিলেন, হে বালক, তোমার উপর আল্লাহ তায়লা রহম করুন, তুমি তো শিক্ষালাভ করিয়াছ, তোমাকে শিখানো হইয়াছে। বায়হাকীতে অনুরূপ রেওয়াত বর্ণিত হইয়াছে। উহাতে আছে, আমি রাসূল (সাঃ) এর খেদমতে একটি বকরীর বাচ্চা লইয়া আসিলাম যাহার বয়স এক বৎসরেরও কম ছিল। তিনি উহার পা নিজের দ্বারা চাপিয়া ধরিয়া উহার স্তনে হাত বুঝাইলেন এবং দোয়া করিলেন। হযরত আবু বকর (রাঃ) তাহার নিকট একটি পেয়ালা আনিলেন। তিনি উহাতে দুধ দোহন করিলেন। অতঃপর হযরত আবু বকর (রাঃ) কে পান করাইলেন এবং নিজেও পান করিলেন।

তাহলে ভাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন TipsTrickBD এর সাথে থাকুন।ধন্যবাদ ।

1 month ago (March 8, 2021) 28 Views
Tags
Direct Link:
Share Tweet Plus Pin Send SMS Send Email

About Author (94)

Author

Nothing To Say....

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts



© 2021 All Right Received