Homeবিজ্ঞান ও প্রযুক্তিপ্লোটোকে গ্রহ বলা হয়না কেন । সম্পূর্ন ঘটনা।

প্লোটোকে গ্রহ বলা হয়না কেন । সম্পূর্ন ঘটনা।

بسم الله الرحمن الرحيم

প্রিয় ভাই প্রথমে আমার সালাম নেবেন । আশা করি ভালো আছেন । কারণ TipsTrickBD এর সাথে থাকলে সবাই ভালো থাকে । আর আপনাদের দোয়ায় আমি ও ভালো আছি । তাই আজ নিয়ে এলাম আপনাদের জন্য একদম নতুন একটা টপিক। আর কথা বাড়াবো না কাজের কথায় আসি ।

সৌরজগতে প্লুটো নেই? নাকি প্লুটো ধ্বংস হয়ে গেছে,নাকি পৃথিবীর বিজ্ঞানীরা এই প্লুটোকে ধ্বংস করে দিয়েছে? অনেক প্রশ্নই মাথায় ঘুরপাক খায় তাহলে চলুন সঠিক উত্তরটি জেনে নেওয়া যাক,

আসলে প্লোট ওর সাথে কি হয়েছে? প্লুটকে এখন গ্রহ না বলার প্রধান কারণ হলো ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল ইউনিয়ন যে সংস্থা নির্ধারণ করে কোনটা গ্রহ, কোনটা নক্ষত্র বা কোনটা উপগ্রহ, ২০০৬ সালে ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল ইউনিয়ন জানায় প্লূট একটি বামন গ্রহ, বামন গ্রহ একে বলা হয় এই কারণে যে প্লুটো অন্যান্য গ্রহের তুলনায় খুব ক্ষুদ্র।
১৯৭৭ সালে বয়জা স্পেস ক্রাফট লঞ্চ করা হয়েছিল, প্রথমে বয়জা টু এবং তার কিছু পর বয়জা ১ লঞ্চ করা হয়েছিল , যা আমাদের সৌরজগতের গ্যাসজায়েন্ট গ্রহ গুলোকে কাছ থেকে দেখতে সাহায্য করে। কিন্তু বয়জার এই অভিযানের সময় প্লুটোকে আমরা তেমন কাছ থেকে দেখতে পারিনি।
যে কারণে ১৯৩০ সালে আমেরিকার বিজ্ঞানী ক্লাইড টমবক প্লুটোর খোঁজ করেছিল। যার জন্য পরে আমাদের সৌরজগতে নয়টি গ্রহের ঘোষণা করা হয়েছিল।
প্লুটো আকারে অনেক বড় ছিল এ নিয়ে বিজ্ঞানীদের মধ্যে অনেক মতভেদ ছিল। প্লূট সৌরজগতের অন্যান্য গ্রহের তুলনায় অনেক আলাদা ছিল। এটি একটি ছোট্ট বরফের গোলা ছিল যার তাপমাত্রা -২২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। প্লুটোর অরবিট অন্যান্য গ্রহের তুলনায় অনেক আলাদা, যেখানে অন্য গ্রহের অরবিট গোলাকৃতি সেখানে প্লুটোর অরবিটি ডিম্বাকৃতি। তাই প্লুটো সূর্যের চারিদিকে ১৭ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে ঘুরে।
এবং প্লুটো সূর্যকে একবার প্রদক্ষিণ করতে সময় লাগে পৃথিবীর সময় অনুযায়ী ২৪৮ বছর।
আশা করি আপনি বুঝতে পেরেছেন প্লুটোর এক বছর হইতে কত সময় লাগে। অর্থাৎ যদি কোন মানুষ প্লুটোতে যায় তার মৃত্যু হয়ে যাবে প্লুটোর এক বছর পূর্ণ হওয়ার আগে। ১৮৪৭ সালে ফ্রেঞ্চ ম্যাথমেটিসিয়ান: আর্বিয়ান লিভেরি ম্যাথামেটিকা ক্যালকুলেশন এর দ্বারা নেপচুনের অস্তিত্ব প্রমাণ করেছিল তিনি দেখিয়েছিলেন ইউরেনাসের অরবিটে কোন একটি জিনিস প্রভাবিত করছে এই ব্যাপারে বিশ্লেষণ করতে গিয়ে তিনি নেপচুনের খোঁজ পায়।
কিন্তু নেপচুনের অবজারভেশনের পরে বিজ্ঞানীরা দেখেছিলেন ইউরেনাসের অরবিট কে শুধু নেপচুন নয় ,বরং আরো একটি শক্তি ওই অরবিটে ডিস্টার্ব করছিল। আর ওটা কি ছিল বিজ্ঞানীরা তখন খোঁজ করতে শুরু করে ।আর এরপর ১৯০৬ সালে পারসিভেল লএল একটি প্রজেক্ট শুরু করে যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘দ্য সার্চ অফ পসিবল নাইন্থ প্লানেট’।
কিছুদিন পরেই প্রজেক্টটি বন্ধ করে দেয়া হয় কিছু আইনের ধারার কারনে । কিন্তু ১৯২৯ সালে আবার এই প্রজেক্টটি পুনরায় চালু করা হয় এবং প্লানেট এক্স খোঁজার দায়িত্ব দেওয়া হয় ক্লাইড টমবকে।
এবং তা ঠিক এক বছর পর ১৮ ই ফেব্রুয়ারি ১৯৩০ সালে প্লূট গ্রহের খুঁজে পায়। এই খোজ এরপর প্লূট ভীষণ জনপ্রিয় হয়ে যায় মানুষের মধ্যে যে কারণে বেশি বিবেচনা বাদ দিয়ে সৌরজগতে নতুন সদস্য এবং নবম গ্রহ হিসেবে প্লুটোকে স্বাগত জানানো হয়।
কিন্তু শুরু থেকে প্লুটো আকার যা ধারণা করা হয়েছে তা ম্যাথের মাধ্যমে ভুল প্রমাণিত হয়।
১৯ জানুয়ারি ২০০৬ সালে প্লুটোর উদ্দেশ্যে একটি রকেট লঞ্চ করে, এই রকেটটি ৯ বছর ৫ মাস ট্রাভেল করার পর ২০১৫ সালে প্লুটোকে কাছ থেকে দেখতে পারেন।
কিন্তু এই রকেটটি প্লুটোর কাছে বেশিক্ষণ থাকতে পারেনি।তাই বিজ্ঞানীদের হাতে অনেক কম সময়ে ছিল প্লুটো সম্পর্কে জানার । আপনি হয়তো জেনে অবাক হবেন রকেটটি যখন প্লুটোতে যায় তখন সেই রকেটে প্লুটোর খোঁজকর্তা ক্লাইড টমবকের এর দেহের কিছু অংশ যা প্লুটোতে রেখে আসে রকেটটি। এটিও ক্লাইড টমবকের জন্য বিশাল বড় একটি সম্মানের ব্যাপার ছিল।

২০০৫ সালে প্লূটর মতো দেখতে আর একটি বামন গ্রহের খোঁজ পায় বিজ্ঞানীরা। যা প্লুটো থেকে অনেক দূরে অবস্থিত ছিল। যার আয়তন প্লুটো থেকেও ২৭ শতাংশ বেশি ছিল যার নাম রাখা হয় এরিস।
এই বিষয়টি ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল ইউনিয়ন কে বাধ্য করে গ্রহের সংজ্ঞা কে আরো ভালভাবে ব্যাখ্যা করতে এবং সংশোধন করছে তাই ২০০৬ সালে তাদের জেনারেল এ্যাসেম্বলিতে তারা
কোনো পিণ্ডকে গ্রহ বলার জন্য কিছু নতুন নিয়ম কার্যকরী করে। এই নতুন নিয়ম অনুযায়ী প্লুটো এখন একটি গ্রহ নয়। এখন বিজ্ঞানীরা প্লুটোর মতো আরো চারটি বামন গ্রহ আবিষ্কার করেছে।
প্লুটোকে ধ্বংস করা হয়নি, আসলে আমাদের ধারনাটা ভুল ছিল। প্লুটোকে এখন অন্য শ্রেণীতে ধরা হচ্ছে বা বলা যেতে পারে প্লুটোর মান কমিয়ে দেওয়া হয়েছে।

তাহলে ভাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন TipsTrickBD এর সাথে থাকুন।ধন্যবাদ ।

11 months ago (January 17, 2021) 227 Views
Tags
Direct Link:
Share Tweet Plus Pin Send SMS Send Email

About Author (50)

Author

Trick Lover

1 responses to “প্লোটোকে গ্রহ বলা হয়না কেন । সম্পূর্ন ঘটনা।”

  1. অনেক ভালো ।

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts



© 2021 All Right Received