HomeC Programmingকম্পিউটার ভাইরাস কী?

কম্পিউটার ভাইরাস কী?

بسم الله الرحمن الرحيم

প্রিয় ভাই প্রথমে আমার সালাম নেবেন । আশা করি ভালো আছেন । কারণ TipsTrickBD এর সাথে থাকলে সবাই ভালো থাকে । আর আপনাদের দোয়ায় আমি ও ভালো আছি । তাই আজ নিয়ে এলাম আপনাদের জন্য একদম নতুন একটা টপিক। আর কথা বাড়াবো না কাজের কথায় আসি ।

এমন একটি কম্পিউটার ভাইরাসকে কোডের অংশ হিসাবে সংজ্ঞায়িত করা হয় যা পিসিটির স্বাভাবিক কার্যকারিতা ব্যাহত করে। এটি নিজেই নিজের প্রতিলিপি তৈরি করে এবং দ্রুত অন্যান্য নেটওয়ার্কগুলির হোস্টগুলিকে প্রভাবিত করতে পারে, এভাবে পুরো নেটওয়ার্কটিকে অকার্যকর করে দেয়। সুতরাং কত তাড়াতাড়ি সম্ভব এটি অপসারণ করা যায় তা জানা আপনার পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ কারণ একটি ম্যালওয়্যার সংক্রমণ আপনার ডেটার গুরুতর ক্ষতি করতে পারে। 1986 সালে প্রথম কম্পিউটার ভাইরাস MS-DOS অপারেটিং সিস্টেমগুলির জন্য তার অস্তিত্ব দেখায,এর নাম দেয়া হয়েছিল “ব্রেইন”। এটি প্রধানত একটি বুট সেক্টর ভাইরাস, এটি ফ্লপি ডিস্কের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। আজকাল, বিভিন্ন ধরণের ম্যালিশাস সফ্টওয়্যার রয়েছে যা উন্নত কোডিং প্রযুক্তি ব্যবহার করে তৈরি করা হয়। পিসি ভাইরাসের ধরণ : যদিও হাজার হাজার সংক্রামক প্রোগ্রাম আপনার পিসিকে প্রভাবিত করতে পারে তবে তাদের সংক্রমণ লক্ষ্যের ভিত্তিতে এদের তালিকাবদ্ধ করা হয়। বুট সেক্টর ভাইরাস : বুট সেক্টর ভাইরাস হার্ড ডিস্কগুলির মাস্টার বুট রেকর্ড (এমবিআর) সংক্রামিত করে। কিছু ভাইরাস হার্ড ড্রাইভের বুট সেক্টরকেও সংক্রামিত করে। এটি বাহ্যিক উতৎ্সগুলির মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে, উদাহরণস্বরূপ, একটি সংক্রামিত ফ্লপি ডিস্ক বা USB ড্রাইভ। ম্যাক্রো ভাইরাস : একটি ম্যাক্রো ভাইরাস সাধারণত মাইক্রোসফ্ট ওয়ার্ড, মাইক্রোসফ্ট আউটলুক এবং অনুরূপ অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে লক্ষ্য হিসেবে গ্রহণ করে। ভাইরাসটিকে নথি বা ইমেইলে এমবেড করা হয়। এবং আপনি যদি কোনোক্রমে ফাইলটি খোলেন, তাহলেই ভাইরাসটি সক্রিয় হয়ে যায় এবং অন্যান্য ফাইল এবং ফোল্ডারে ছড়িয়ে যেতে পারে। ইমেইল ভাইরাস : এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার জন্য ইমেলকে মাধ্যম হিসেবে ব্য্যবহার করে এবং পিসিকে সংক্রমণ করে। এই ধরনের ম্যালওয়্যার ইমেল সংযুক্তিগুলিতে লুকানো থাকে এবং যত তাড়াতাড়ি আপনি সংযুক্তিটি ডাউনলোড বা খুলতে সক্ষম হন এটি ছড়িয়ে পড়ে। কিভাবে কম্পিউটার ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে? বাইরের কোনো ভাইরাস সংক্রমিত হার্ড ড্রাইভ আপনার পিসিতে ঢোকানো হলে কম্পিউটার ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। এই অপসারণযোগ্য ডিভাইস একটি পেন ড্রাইভ, একটি বহিরাগত হার্ড ডিস্ক বা একটি ফ্লপি ড্রাইভ হতে পারে। বহিরাগত হার্ড ড্রাইভ ছাড়াও এটি ইমেল সংযুক্তিগুলির মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে যা সহজে ম্যালওয়্যার বহন করতে পারে। আপনি যদি অবিশ্বস্ত ওয়েবসাইট থেকে সফটওয়্যার, সিনেমা, গান ইত্যাদি ডাউনলোড করেন তবে আপনার কম্পিউটারও সংক্রামিত হতে পারে। কম্পিউটার ভাইরাস সংক্রমণ লক্ষণ : আপনি সহজেই কম্পিউটার ভাইরাস সংক্রমণ লক্ষণ সনাক্ত করতে পারেন। একটি প্রধান ইঙ্গিত আপনার পিসি অত্যন্ত ধীর গতিতে চলছে। আরেকটি লক্ষণ আপনার বিদ্যমান ফায়ারওয়াল সুরক্ষা নিষ্ক্রিয় হয়ে যেতে পারে। আপনার পিসির রানিং অ্যাপ্লিকেশনগুলো ঘন ঘন ক্র্যাশ করতে পারে। অন্যান্য এলার্ট যেমন হার্ড ড্রাইভ malfunction, এরর মেসেজ এবং অন্যান্য পপ আপ হতে পারে। ভাইরাস প্রতিরোধ কিভাবে? ভাইরাসগুলিকে আপনার কম্পিউটারকে সংক্রামিত করতে বাধা দেওয়ার জন্য আপনাকে অবশ্যই কিছু ভাল ব্যবস্থা অনুসরণ করতে হবে। যেমন: -অপসারণযোগ্য ডিভাইস / ইউএসবি ডিভাইসগুলি কোন ভাইরাস স্ক্যানার ব্যবহার করে স্ক্যান করা ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। -অনিরাপদ ওয়েবসাইটগুলি থেকে সফটওয়্যার ডাউনলোড করা থেকে বিরত থাকুন। -প্রেরক আইডি যাচাই না করে ইমেল সংযুক্তিগুলি খুলবেন না -বিনামূল্যের সফটওয়্যারের পরিবর্তে একটি প্রিমিয়াম অ্যান্টিভাইরাস সফ্টওয়্যার ব্যবহার করুন কারণ ফ্রি সফটওয়্যারটি 100% সুরক্ষা প্রদান করতে সক্ষম নাও হতে পারে।

তাহলে ভাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন TipsTrickBD এর সাথে থাকুন।ধন্যবাদ ।

5 months ago (January 14, 2021) 78 Views
Tags
Direct Link:
Share Tweet Plus Pin Send SMS Send Email

About Author (50)

Author

Trick Lover

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts



© 2021 All Right Received